কুমিল্লায় থানা থেকে মাদক সরিয়ে বিক্রির অভিযোগে দুই এসআই ক্লোজড

কুমিল্লার কোতয়ালী মডেল থানার মালখানা থেকে মাদক সরিয়ে বিক্রির অভিযোগে দুই এসআইকে ক্লোজড করে জেলা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া সালাহ উদ্দিন নামে থানার এক পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এছাড়াও এ ঘটনায় একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ-আল মামুন কুমিল্লার খবরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সূত্রে জানা যায়, কোতয়ালী মডেল থানার মালখানা থেকে সালাহ উদ্দিন নামে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মী সম্প্রতি মাদকদ্রব্য সরিয়ে অন্যত্র বিক্রি করে টাকা হাতিয়ে নেয়। বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের নজরে আসে। পরে এ নিয়ে জেলা পুলিশ প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল কোতয়ালী মডেল থানায় ছুটে যান এবং মালখানার মালামালের রেজিস্ট্রারসহ অন্যান্য বিষয় খতিয়ে দেখেন।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ-আল মামুন জানান, এ ঘটনায় থানার মালখানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই আহসান হাবিব ও থানার অপারেশন অফিসার এসআই তপন বকশীকে ক্লোজড করে জেলা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে। পরিচ্ছন্নতা কর্মী সালাহ উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এছাড়া বিষয়টি তদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. আলমগীর হোসেনকে প্রধান করে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

Comments

comments