‘কুমিল্লা’ নামে বিভাগের দাবিতে মহাসমাবেশে কর্মসূচি ঘোষণা

‘কুমিল্লা’ নামে বিভাগের দাবিতে মহাসমাবেশ করেছে প্রতিবাদী জনতা। এ দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলনের ৮ম দিনে মঙ্গলবার নগরীর কান্দিরপাড় পূবালী চত্বরে এ মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সেই সঙ্গে মহাসমাবেশে দাবি বাস্তবায়নের লক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এছাড়া একই দাবিতে জেলার বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ পালন করেছে স্থানীয় এলাকার জনগণ।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও অব্যাহত রয়েছে প্রতিবাদের ঝড়। মঙ্গলবার সচেতন কুমিল্লাবাসী ব্যানারে প্রতিবাদী জনতা নগরীর কান্দিরপাড় পূবালী চত্বরে মহাসমাবেশ করে।

বিভিন্ন এলাকা থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে ওই সমাবেশে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার লোকজন অংশগ্রহণ করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, অধ্যক্ষ সেলিম রেজা সৌরভ, হাসান ইমাম মজুমদার ফটিক, আবুল কাশেম হৃদয়, নীতিশ সাহা ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দাবি বাস্তবায়নের লক্ষে আজকের সমাবেশে আগামীকাল বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান এবং দুপুর ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত নগরীর সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি মন্ত্রিসভার বৈঠকে ময়মনসিংহকে অষ্টম প্রশাসনিক বিভাগ ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়।

এরপরই উঠে আসে কুমিল্লাকে বিভাগ করার বিষয়টি। ওই বছরের ২৬ জানুয়ারি চট্টগ্রাম বিভাগকে ভেঙে কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চল নিয়ে পৃথক বিভাগ করা যায় কি-না এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে নির্দেশনা দেন।

পরে ২০১৫ সালের ২৫ মে কুমিল্লা টাউনহলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কুমিল্লাকে বিভাগ ঘোষণার বিষয়ে আশ্বাস দেন।

Comments

comments