কুমিল্লায় ইজ্জতের মূল্য ১৫ হাজার টাকা

কুমিল্লা ( কুমিল্লার খবর.কম ): কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ঢুলিপাড়া এলাকায় ১ সেপ্টেম্বর শাহজাহান (৪০) নামে এক নরপশুর হাতে সোনিয়া (ছদ্মনাম) নামে ৭ বছরের এক শিশুর শ্লীলতাহানি ঘটে। পরে স্থানীয় প্রভাবশালী টাউট বাটপার ভয়ভীতি দেখিয়ে ১৫ হাজার টাকায় বিষয়টির সুরাহা করলেও ওই শিশুর পরিবার টাকা গ্রহণ করেনি।


স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ঢুলীপাড়া এলাকার শাহজাহান নামে এক ব্যক্তি ১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় প্রতিবেশী দরিদ্র রিঙ্াচালক মমিন মিয়া প্রকাশ চেয়ারম্যানের ৭ বছর বয়সী শিশু কন্যা সোনিয়াকে কৌশলে ঘরে ডেকে নেয়। পরে ধর্ষনের চেষ্টা করে শিশুর পরিধানের কাপড় ছিড়ে ফেলে। শিশুটি চিৎকার করতে থাকলে এসময় শাহজাহান তাকে ছেড়ে দেয়। ঘরে এসে এ ঘটনা তার মাকে বললে মুহুর্তের মধ্যে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়।

রাতে সোনিয়ার পিতা মমিন মিয়া বাড়িতে এসে বিষয়টি শুনে মামলা করার উদ্যোগ নিলে স্থানীয় টাউট বাটপাররা তাকে বাধা দেয় এবং স্থানীয় ভাবে সমাধানের আশ্বাস দেয়। গত ৫ সেপ্টেম্বর স্থানীয় টাউট হাবিব, একলাস, মমতাজ, গফুর, ইদ্রিছ প্রমুখ মমিন মিয়াকে ডেকে ১৫ হাজার টাকা দেয়ার চেষ্টা করলে তিনি তা ফিরিয়ে দেন। এর আগে উল্লেখিত টাউটরা মমিন মিয়ার কাছ থেকে দু’শ টাকার ষ্ট্যাম্পে মামলা না করার শর্তে স্বাক্ষর আদায় করে নেয়।


এব্যাপারে স্থানীয় টাউট মাতব্বর হাবিব ও একলাসের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, দু”পক্ষই দরিদ্র তাই আমরা সামাজিক ভাবে বিষয়টি মিমাংসা করে। আমরা জোর বিচার মানতে বাধ্য করছি কথাটি সত্য নয়। এদিকে একই এলাকার অদ্য সাবেক কাউনন্সিলর করিম মিয়া জানান, বিষয়টি আমি পরস্পরের মাধ্যমে শুনেছি। মিমাংসা করার সময় আমি ছিলাম না।


কুমিল্লার খবর.কম, ০৭-০৯-২০১১

Comments

comments