কুমিল্লায় যান চলাচল স্বাভাবিক

জেলার ৩২টি রুটে বুধবার দুপরের পর থেকে যান চলাচল শুরু হয়েছে। সারাদেশের মতো কুমিল্লায় মঙ্গলবার থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুর হয়। কুমিল্লার সহস্রাধিক বাসের শ্রমিকরা ট্রার্মিনাল অবরোধ করে পরিবহন ধর্মঘট শুরু করে। ধর্মঘটের কারণে বাস চলাচল বন্ধ ছিলো। এতে জনজীবনে নেমে আসে চরম দুর্ভোগ।

কুমিল্লা নগরীর জাঙ্গালিয়া,শাসনগাছা ও চকবাজার টার্মিনাল থেকে বাস চলাচল শুরু হয়েছে। যাত্রীদের উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে উঠেছে বাস টার্মিনালগুলো। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কও যান চলাচল বেড়েছে।

জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সূত্র জানায়, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের ঘটনায় আমাদের এক বাসচালকের যাবজ্জীবন, অন্যজনের ফাঁসির কারাদণ্ডাশের প্রতিবাদে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে সারাদেশে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়। এছাড়া বুধবার ঢাকায় আরেকজন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

শাহাদাত হোসেন নামের একজন যাত্রী স্বস্তি প্রকাশ করে বলেন, বাস শ্রমিকরা যে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে এতে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বাস চলাচল শুরু হওয়ায় এখন চলাচলে সুবিধা হবে। এ অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে কাউকে আর সুযোগ দেওয়া যবে না।

কুমিল্লা জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী জানান, বাস শ্রমিকরা তাদের দাবি আদায়ে ধর্মঘট করেছে। এখন কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তে তারা ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে। কুমিল্লা থেকে সব রুটের যান চলাচল স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে।

হাইওয়ে কুমিল্লা অঞ্চলের পুলিশ সুপার মো.রেজাউল করিম বলেন, দুই এক স্থানে শ্রমিকরা পরিবহন চলাচলে বাধা দিতে চেয়েছিল, আমরা বুঝিয়ে তাদের সরিয়ে দেই। কুমিল্লার কোথাও অপ্রীতিকর কিছু হয়নি। কুমিল্লার সব রুটের যান চলাচল স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে।

Comments

comments